ময়মনসিংহ, মঙ্গলবার, ১১ই আগস্ট, ২০২০ | ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ () ৩১°সে
শিরোনাম :
ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে অসহায়দের মাঝে খাদ্যশষ্য বিতরন ফুলবাড়ীয়ায় নির্মাণের সাতদিনের মধ্যে ফেটে গেছে কালভার্ট , মুখ মাটি দিয়ে করা হচ্ছে ভরাট করোনাকালে শেরপুরে পত্রিকা বিক্রেতাদের দুর্দিন!! পত্রিকা নিচ্ছে না অনেকেই বঙ্গবন্ধু এরঁ জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে শেরপুরে নিজাম উদ্দিন কলেজে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি তারাকান্দায় সড়ক দুর্ঘটনায় মুখোমুখি সংঘর্ষে ব্যবসায়ী নিহত শেরপুরে শুভ জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপিত ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের কর্মসুচী নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে বন্যার্তদের মাঝে যুবলীগের ত্রাণ বিতরণ অ্যাম্বুলেন্সেও বেঁচে ছিলেন সুশান্ত, তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য করোনার পর টাইগারদের প্রথম সফর চূড়ান্ত

শেরপুরে বন্যায় সবজীর আবাদের ব্যাপক ক্ষতি, দিশেহারা কৃষক

শাহরিয়ার শাকির :
ব্রক্ষপুত্র নদের পানির বৃদ্ধি, প্রবল বর্ষণ ও ওজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে শেরপুর জেলার ৫টি উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন বন্যা কবলিত হয়ে পড়ায় সবচেয়ে ক্ষতির মুখে পড়েছে জেলার সবজী চাষীরা। এতে সবজী সংকট দেখা দিবে। ঋণ করে সবজীর আবাদ করা কৃষকদের ঋণ পরিশোধ করা নিয়েও আছে দুশ্চিন্তায়। এ নিয়ে একটি ডেস্ক রিপোর্ট।
শেরপুর জেলা সবজী উৎপাদনের জন্য উল্লেখযোগ্য একটি জেলা।

এ জেলার উৎপাদিত সবজী জেলার চাহিদা মিটয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু চলতি বন্যায় শেরপুরের এ সবজীর আবাদই পড়েছে সবচেয়ে বেশী ক্ষতির মুখে। ব্রক্ষপুত্র নদের পানির বৃদ্ধি, প্রবল বর্ষণ ও ওজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে শেরপুর জেলার ৫টি উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। এসব ইউনিয়নেই সবজীর আবাদ হয় বেশী। ফলে শাক, ঢেরস, লাউ, বেগুন, পুডল, চিচিংগা, কুমোড়, শসাসহ বিভিন্ন সবজীর ক্ষেতে পানি ওঠায় এসব ক্ষেত মরে যাচ্ছে। কৃষকরা জানায় যেসব ক্ষেতে পানি ওঠেছে এসব ক্ষেত আর টিকবে না।

জেলায় এ পর্যন্ত অন্তত এক হাজার পাচঁশত একর জমির সবজীর আবাদ ক্ষতি গ্রস্থ হয়েছে। সরকারী হিসেবে এ ক্ষতির পরিমান ৯শ একর।

এদিকে কৃষকরা জানান, তাদের বিভিন্ন সবজীর আবাদ করতে ঋণ করতে হয়েছে। এখন এ ঋণ তারা পরিশোধ করবে কিভাবে? করোনার কারণেও ক্ষতিগ্রস্থ হয় কৃষক। জেলার সবজী চাষীদের দাবী তাদের বিষয়ে সরকার একটা ব্যবস্থা গ্রহণ করুক।
শেরপুর জেলার উল্লেখযোগ্য কৃষক সবজীর আবাদ করে থাকে। এসব কৃষকরা সবজীর আবাদ করে স্বাবলম্ভী হয়ে উঠছে। কিন্তু করোনার কারণে ও বন্যায় ক্ষতি গ্রস্থ এসব কৃষক দিশেহারা। তাই জেলাবাসীর দাবী এসব ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের বিষয়ে প্রনোদনা দেয়ার ব্যবস্থা করা হউক।

শেরপুর জেলা কৃষি সম্প্রসরণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড: মুহিত কুমার দেব জানান, আমরা কৃষকদের মাঝে স্বল্পমেয়াদী সবজী চাষ করতে বীজ প্রদানসহ সহযোগিতা করবো। এ ছাড়া কিভাবে তাদের ক্ষতি পোষানো যায় এ বিষয়টিও ভাবছি।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

করোনা মোকাবেলায় এডিবির ৩ মিলিয়ন ডলার অনুদান
কৃষি, পাট ও পাটজাত পণ্যের রপ্তানি বেড়েছে
এনসিসির এমডির পুনর্নিয়োগের আবেদন নাকচ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের
ম্যাজিস্ট্রেট মাঈদুল এর অভিযানে পণ্যের অতিরিক্ত দাম বৃদ্ধি করায় ব্যবসায়ীকে ষাট হাজার সাতশত টাকা অর্থদণ্ড
আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল আযহা উপলক্ষে যানজট নিরসনের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত
ময়মনসিংহে নন এমপিও শিক্ষক ও কর্মচারীদে মাঝে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক বিতরণ

আরও খবর