ময়মনসিংহ, রবিবার, ৯ই মে, ২০২১ | ২৬শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মুহাম্মদ মাসুদ রানা, হালুয়াঘাটঃ করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলা সর্বাত্নক লকডাউনের মাঝে মানুষের জীবন ও জীবিকার বিষয়ে বিবেচনায় ‘কঠোর বিধিনিষেধে’র মধ্যেও শপিং মল ও দোকানপাট খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। সারা দেশের ন্যায় ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটেও দোকানপাট খোলার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত খোলা রাখা যাবে।

কিন্তু আজ (২৮-এপ্রিল) বুধবার সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, বাজারে আসা ক্রেতা সাধারণ স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করে স্বাভাবিক সময়ের মতোই দিন পার করছেন। ক্রেতা- বিক্রেতাসহ চলতিপথের মানুষদের অনেকের মুখে নেই মাস্ক। বিশেষ করে গ্রামের বাজার গুলোতে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের চিত্র চোখে পড়ার মতো। জরুরি প্রয়োজনে সেবা প্রদানের জন্য খোলা হাসপাতাল, ব্যাংক এমনকি সরকারি বিশেষ অফিসগুলোতেও “নো মাস্ক-নো সার্ভিস” শতভাগ বাস্তবায়ন হচ্ছে না। মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসুল্লিদেরও চিত্র প্রায় একই রকম। অটোরিকশা, মাহেন্দ্র, সিএনজি চালিত থ্রী-হুইলারের ড্রাইভার ও যাত্রীদের অবস্থা যাচ্ছেতাই। গাদাগাদি করে গন্তব্যের উদ্দেশে যাত্রা।

সর্বোপরি লকডাউন শিথিলে নিম্নবিত্ত ও শ্রমজীবী মানুষ খুশি হলেও পুরোপুরি উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি। তবে সৃষ্ট চিত্রের এখনি লাগাম টেনে না ধরলে আমাদেরকেও এর মাশুল দিতে হবে। বর্তমানে যেমনটি দিচ্ছে আমাদের পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র ভারত।

আপনার মতামত লিখুন :

আরও পড়ুন

Loading...
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে হালুয়াঘাটে কৃষকের ধান কেটে দিলেন সাংসদ জুয়েল আরেং।
Loading...
হালুয়াঘাট উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
Loading...
হালুয়াঘাট উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
Loading...
টিসিবির পণ্য বিক্রয় এখন শহর ছাড়িয়ে গ্রামে
Loading...
হালুয়াঘাটে কর্মহীনদের পাশে ওমর ফাউন্ডেশন
Loading...
হালুয়াঘাট ইউএনও’র হাতে মাস্ক তুলে দিলেন প্রকৌশলী কামরুজ্জামান